slideshow 1 slideshow 2 slideshow 3

You are here

স্বাস্থ্য

ট্রিপস্ এবং বাংলাদেশের জনগণের স্বাস্থ্য

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে সাম্প্রতিক কালের বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, বেশ কিছু ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন সূচিত হয়েছে। স্বাস্থ্য-সূচকের কিছু ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতি জাতীয় ও বৈশ্বিক পরিমণ্ডলে প্রশংসিত হচ্ছে। দেখা যায়, স্বাস্থ্য সচেতনতা, রোগ প্রতিরোধে টিকা গ্রহণ, সেবা গ্রহণ, মাতৃ ও শিশুমৃত্যু হ্রাস, গড় আয়ু বৃদ্ধি, জন্মনিয়ন্ত্রণ ইত্যাদি ক্ষেত্রে অগ্রগতি হয়েছে। সরকারি সেবার পরিধি যেমন বৃদ্ধি পেয়েছে, পাশাপাশি বিস্তৃত হয়েছে বেসরকারি খাতের স্বাস্থ্যসেবা। ঔষধ শিল্পে বাংলাদেশের অগ্রগতি উল্লেখযোগ্য। তারপরও অবশ্য একথা অস্বীকার করার সুযোগ নেই যে, বিগত কয়েক দশকের অগ্রগতি স

ফাটা বাঁশে বিচি আটকানোর গল্প

ফাটা বাঁশে বিচি আটকানো'র বা মাইন'কা চিপায় ফাইস্যা যাওয়ার বর্ণনা কিঞ্চিৎ অশ্লীলতাদোষে দুষ্ট; যদিও বিষয়টি মোটেই সুখকর কিছু নয়, বরং উদ্ধারের পুর্ব পর্যন্ত কষ্টকর-বেদনাদায়ক,উদ্ধার পরবর্তী যন্ত্রনাও কিছু কম নয়। আমাদের পুরো জাতি পড়েছে এই মাইন'কা চিপায়। সব খাতেই এই অবস্থা। লিখছিলাম স্বাস্থ্য-সেবা নিয়ে, এই খাতের ভোক্তাদের মাইন'কা চিপায় পড়ার গল্পই আজ আরো খানিকটা বলি। না, থাক। শুরুর আগে অন্য কথা বলে নেই।

এই লেখাটা চলাকালে বাংলাদেশের বেশ কয়েকজন ডাক্তারের সাথে আমার কথা হয়েছে, তাদের কেউ কেউ বলেছেন সরকারী হাসপাতাল থেকে সু-চিকিৎসা পেয়ে হাসি মুখে রোগীদের বাড়ি ফেরার গল্প। নিশ্চয়ই, এরকম আকছারই ঘটে; প্রায় ষোল কোটি মানুষের এই দেশে এরকম কিছু ঘটনা না ঘটাই দারুন অস্বাভাবিক। অনেক নিবেদিত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মী নিশ্চয়ই আছেন, যারা নিরলস কাজ করেন। কিন্তু এটা কি সার্বজনীন চরিত্র?