slideshow 1 slideshow 2 slideshow 3

You are here

বুড়ো রোহিঙ্গা ও এক বড়ো বোকা লোক!

এক সকালে হু হু করে কেঁদে ফেললো এক বড়ো বোকা লোক।
আর কিছু না, টেলিভিশনে দেখেছিলো এক বুড়ো রোহিঙ্গার মুখ;

উস্কোখুস্কো চুল আর দাড়ি; বলছিলো বুড়ো: পুড়ে গেছে ঘর-বাড়ি—
সব সবাই! বেঁচে আছে একা, এবং বাঁচার আশায় পরদেশে পাড়ি;

এসে দেখে এখানেও আগুন দ্বিগুণ, এখানেও রক্ত, হুমকি-ধমকি-খুন;
কারা যেনো হেসে হেসে সীমান্তে বসে মানুষের কাটা ঘায়ে ছিটায় নুন।

বলছিলো বুড়ো। চলছিলো খবর টেলিভিশনে। কাঁদছিলো এক বোকা লোক;
মানুষের কাছে মানুষ যদি আশ্রয় না পায়, এই পৃথিবী আজই ধ্বংস হোক!

লেখার ধরন: 
12345
Total votes: 357

মন্তব্য

শশাঙ্ক বরণ রায়-র ছবি

মানুষের চোখ দিয়ে মানুষের মুখ দেখা...

........................................................

আদিবাসী বাঙ্গালী যত প্রান্তজন
এসো মিলি, গড়ে তুলি সেতুবন্ধন

বিপ্লব রহমান-র ছবি

সীমান্ত খুলে দিলে একজন রোহিঙ্গাও ওখানে বসে থাকবে না হুড়মুড় করে সব চলে আসবে। ৭ লাখ কম কথা নয়! এতগুলো মানুষকে কোথায় জায়গা দেবে বাংলাদেশ? কি খাওয়াবে, কিভাবে খাওয়াবে? এদের যখন ফেরত পাঠাতে পারবে না, তখন কি অবধারিত ভাবে ঠেলে দেয়া হবে পাহাড়ে? এরকম প্রস্তাব অনেকেই দেয়াও শুরু করেছে দেখলাম। নিজের দেশে বাস্তুহারা হয়ে থাকা পাহাড়ের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ভীতি ও শংকায় আছি তবু আশ্রয়প্রার্থী বিপদগ্রস্ত মানুষ কে দুর দুর করে তাড়িয়ে দেয়াটা মনুষ্যত্তের চরম লংঘন। রোহিঙ্গাদের প্রতি এই নিষ্ঠুরতা দেখে মানুষ হিসাবে লজ্জায় মাথানত করছি।


--সহব্লগার কু্ঙ্গ থাঙ-এর ফেবু নোট। 

দুঃখজনক নোট।

আইজকাই ধ্বংস হইক।

বুড়া লোক আর বোকা লোক উভয়ের জন্যই রইলো আন্তরিক সমবেদনা...

এ পিথমি চাই নে।

মন্তব্য