slideshow 1 slideshow 2 slideshow 3

You are here

নামহীন-এর ব্লগ

নিকলীঃ কিছু ছবি কিছু কথা

চামটা বন্দর থেকে আমরা যখন নিকলী বাজারে পৌছলাম তখন বেলা প্রায় ১১ টা। আমরা মানে আমি, সারোয়ার, রাহাত আর সাত্তার। নৌকা ঘাটে ভিড়তেই বেশ কিছু কৌতুহলী মুখ আর তাদের উৎসুক চাহনি চোখে পড়ল। আমাদের চাইতে আমাদের সাথে থাকা ক্যামেরাগুলোই তাদের কৌতুহলের কারন। জানতে চাইল কোথা থেকে এসেছি? ঢাকার কথা বললাম। তারপরের প্রশ্ন আপনারা কোন চ্যানেলের? জবাব না দিয়ে মুচকি হেসে কিছুদুর এগুতেই টের পেলাম আমাদের পেছন পেছন ছোটখাট একটা মিছিলের মত হয়ে গেছে। হাজার হোক কৌতুহল বলে কথা।


হেলিকাপ হেলিকাপ লইয়া যাও লইয়া যাও

ফটো ব্লগঃ চে গুয়েভারার বাসভবন জাদুঘর

গ্লোবাল ভয়েজেস-এর কর্মী, ব্লগার, এক্টিভিস্ট ও ফটো সাংবাদিক লরা স্নেইডারের সাথে আমার পরিচয় হয় গ্লোবাল ভয়েজেসের কেনিয়া সম্মেলনে। আর্জেন্টিনীয় এই নারী সাংবাদিকের সাথে আলাপচারিতায়  উঠে আসে নানা প্রসঙ্গ-  গুয়েভারাও সেই আলাপচারিতার অন্যতম অনুষঙ্গ। লরার অনুমতি ক্রমে তাঁর ব্লগ থেকে চে গুয়েভারা বাসভবন জাদুঘরের ছবি উন্মোচন পাঠক

শাহবাগঃ প্রজন্মের আন্দোলনের ছবি

 শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরের বয়স আজ আট দিন। চলমান এ আন্দোলনে আমার তোলা কিছু ছবি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি

 

 

শাহবাগঃ তারুণ্যের একখণ্ড স্বাধীন ভূমি

 গত দুদিনে শাহবাগ চত্বরে ছিলাম বেশ কিছু সময় ধরে। অগুনতি মানুষের দ্রোহের মিছিল। পুরো শাহবাগ যেন পরিণত হয়েছে গণমানুষের আশ্রয়স্থলে। সম্মিলিত, জোটবদ্ধ, কিংবা একাকী মানুষেরা ক্রমেই পরিণত হচ্ছে গণজোয়ারের অংশে। যেন বিন্দু বিন্দু জল জন্ম দিচ্ছে মহা সমুদ্রের। এ জন সমুদ্রে এসেছেন ছাত্র-ছাত্রী, বেকার যুবক, বাবা-মার চোখ ফাকি দিয়ে এসেছে স্কুল- কলেজের শিক্ষার্থী, চীর যুবা অতিশীপর বৃদ্ধার হাত ধরে অবোধ শিশু, প্রেমিক যুগল, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার ক্যামেরাম্যান, রিপর্টার, কবি, রাজনৈতিক নেতা কর্মী, ব্লগার, হকার, বাদাম বিক্রেতা, ফটো সাংবাদিক,পেশাদার ফটোগ্রাফার, লেখক, অফিস ফাঁকি দিয়ে আসা &nbsp

জামাই বিক্রয় হইবে : ছেলেদের “ভালো” শিক্ষা কেন “ভারী” যৌতুকের সমার্থক?

 কৈফিয়ত : প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে মাঝে মাঝেই গ্লোবাল ভয়েজে ঢুঁ মারি।  সময় পেলে দু- একটা অনুবাদও করি । কাল ঢুঁ মারতে গিয়ে সুহৃদ রিজওয়ান ভাইয়ের একটা পোস্টে চোখ আটকে গেল। ইউথ কি আওয়াজ ব্লগের নিতিশা পান্ডের Grooms for Sale : Why Is A Boy’s “Good” Education Equivalent To “Handsome” Dowry?

সিরিয়া : মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘতর হচ্ছে

গত ২৫ মে সিরিয়ার হমস শহরের উত্তর পশ্চিমে অবস্থিত হুলায় নজীরবিহীন গণহত্যার ঘটনা ঘটে। এ গণ হত্যায় ১১৬ জন প্রাণ হারায়। নিহতদের মধ্যে ৪৯ জন শিশু ও ৩৪ জন নারী।

বেশ কয়েক মাস ধরে চলমান সিরীয় সংকটে নিহতদের সংখ্যা নিয়ে সরকার ও বিরোধী দল গুলোর মধ্যে মত পার্থক্য রয়েছে। সরকারি দাবি অনুযায়ী চলমান সরকার বিরোধী আন্দোলনে এ পর্যন্ত ৫,০০০ জনের প্রাণহানী ঘটেছে অন্যদিকে বিরোধী দল দাবি করছে এ সংখ্যা ৬,০০০ এর মত। দাবি যাই হোক না কেন মৃত্যুর মিছিল যে দীর্ঘতর হচ্ছে সে বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই।

হুলার গণহত্যার ছবি-

কাক তালীয় ছবি

মানুষের মন বড় বিচিত্র। কোন ঘটনার সাথে কাকতালীয় ভাবে কিসের যে মিল খুজে পায় বলা মুশকিল।

গতকালের সংবাদপত্রে

 

 এ  ছবিটা দেখে নিচের ছবিটার কথা মনে পড়ল

আবারও বলছি বিষয়টা কাকতাল মাত্র

কলম্বিয়ার সাম্প্রতিক ছাত্র আন্দোলন

 উচ্চশিক্ষা সংক্রান্ত ১৯৯২ সালের ৩০ নম্বর  আইন সংস্কারের সরকারি উদ্যোগের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে কলম্বিয়ায় গত বুধবার  আবারও দশ হাজারেরো বেশি ছাত্র কলম্বিয়ার প্রধান শহরগুলোর রাস্তায় নেমে আসে। বিক্ষোভকারীরা দাবি করে যে তথাকথিত এ সংস্কার দেশটির সংখ্যাগরিসঠ জনগণের বিপরীতে মুষ্টিমেয় ধনীদের জন্য সুযোগ তৈরি করবে।

আমাদের বাড়ি ফেরা ......

নগর জীবনে প্রতিষ্ঠার ইঁদুর দৌড়ে ব্যস্ত মানুষগুলো উৎসবে পার্বণে বাড়িমুখো হয়।বাস, ট্রেন,লঞ্চে এমনকি মফস্বলের ভ্যানগাড়িতেও চোখে পড়ে ঘরমুখো মানুষের থোকা থোকা মুখ। এদের কেউ কর্মচারী,কেউ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা,এনজিও কর্মী, পোষাক শিল্প বা উৎপাদন কারখানার শ্রমিক,ছাত্র,ধার্মিক,অধার্মিক,মধ্যবিত্ত,নিম্নবিত্ত অথবা বিত্তহীন নারী-পুরুষ ও শিশু। উৎসব-পার্বণগুলোতে যেন সমগ্র দেশের মুখচ্ছবি হয়ে যায় আমাদের গণ পরিবহণগুলো।

জলহস্তি সমাচার

জলহস্তি প্রাণীটি যে দেখতে বদখত একথা নিশ্চয়ই সকলে একবাক্যে স্বীকার করবেন। এই জলহস্তির হা করা মুখ দেখেছেন কেউ কখনো> ভালো করে লক্ষ্য করলে দেখবেন এ প্রাণীটির মুখের হা বিশাল। যেনো এক সর্বগ্রাসী ক্ষুধা নিয়ে সে তামাম দুনিয়াটাকে একগ্রাসে গিলে খাবে। আশার কথা হলো ঠিক যতবড় হা সে অনুপাতে এ প্রাণীটি গিলতে পারে সামান্যই। তৃনভোজী এ প্রাণীটি কিন্তু আদতে খুবই নিরীহ,ম্যান্দামারা। এ প্রাণীটির বিশাল হা য়ের মতো আমাদের সামরিক-বেসামরিক আমলাতন্ত্র আর রাজনীতিবীদ গণও একসর্বগ্রাসী ক্ষুধা নিয়ে আমাদের সমাজ-সংস্কৃতি আর অর্থনীতিসহ ৫৫ হাজার বর্গমাইল একগ্রাসে গিলে ফেলতে উদগ্রীব। ক্ষমতায় থাকল